দিবস

16 December বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা ২০২২, SMS, Message, Status

সম্মানিত পাঠক বৃন্দ, আপনাদের বিজয়ের মাসে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জানাই শুভেচ্ছা। ১৯৭১ সালে ২৫ শে মার্চ থেকে শুরু করে দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ করে ১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশ শত্রু মুক্ত করে। এই দিন নানা উৎসব আনন্দ উল্লাসের মধ্যে দিয়ে বিজয় উৎসব পালন করে। তাই আজকের এই অনুচ্ছেদে ১৬ই ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিজয় দিবসের পোস্টার নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। বিজয় দিবস উপলক্ষে স্কুল কলেজ সরকারি প্রতিষ্ঠান বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ এবং শোভাযাত্রা সহ নানা উৎসবের মধ্যে দিয়ে দিনটি উদযাপন করা হয়। এই দিনে শোভাযাত্রায় ব্যানারে  বিজয় দিবসের বিভিন্ন স্লোগান ব্যবহার করা হয়। সারা দেশব্যাপী বিজয় দিবস উপলক্ষে নানার রংবেরঙের পোস্টার বিজয়ের শুভেচ্ছা এবং বিজয়ের বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে পোস্টার গুলো সাজানো থাকে।

তাই আপনি যদি বিজয়ের মাসে পোস্টার করতে চান তাহলে আমাদের এই অনুচ্ছেদে বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন পোস্টার সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আপনি পোস্টারে কোন স্লোগান ব্যবহার করবেন এবং কোন ধরনের ডিজাইন ব্যবহার করবেন তা আমাদের এই অনুচ্ছেদে আলোচনা করা হয়েছে। এছাড়া আপনি বিজয়ের মাসে বিভিন্ন পোস্টার এবং বিজয় দিবসের লোগো ব্যবহার করে প্রতিপাদ্য দিবস উপলক্ষে স্লোগান ব্যবহার করে আপনার ফেসবুক প্রোফাইল অথবা অনলাইনে পোস্ট শেয়ার করতে পারেন। তাই আজকের এই অনুচ্ছেদে আলোচনা করা হয়েছে বিজয় দিবস উপলক্ষে পোস্টার সম্পর্কে।

বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা SMS, Message, Status 2022

স্বাধীনতা আমাদের অহংকার। পৃথিবীতে কোন জাতি রক্তের বিনিময়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে যদি পরিসংখ্যান করা যায় তাহলে বাঙালি জাতির ইতিহাস সামনে আসে। পৃথিবীতে একমাত্র বাঙালি রাইত রক্তের বিনিময়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর কাছ থেকে। খাজা নাজিম উদ্দিন ইয়াহিয়া খান আইয়ুব খান এর মত নেতারা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে শোষণ করে চলেছে দীর্ঘদিন। তাদের শাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী বাঙালি আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ে। বাঙালি জনগণ জাতির যা কিছু রয়েছে সবকিছু উজাড় করে রক্তের বিনিময়ে ছিনিয়ে এনেছে শাসকগোষ্ঠী পাকিস্তানে হানাদার বাহিনীর কাছ থেকে। এই স্বাধীনতা বাঙালি জাতির অহংকার।

  • ১৬ই ডিসেম্বর বাংলাদেশের মানুষের জন্য একটি লাল অক্ষরের দিন। এমন একটি দিন যা উদযাপনের যোগ্য। বাংলাদেশের বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা
  • একটি জাতির মানুষের জন্য সবচেয়ে বড় লড়াই হলো স্বাধীনতার লড়াই। বাংলাদেশের বীর সেনা ও জনগণকে স্যালুট।
  • প্রতিটি যুদ্ধেরই ফলাফল রয়েছে যা লক্ষ লক্ষ মানুষকে প্রভাবিত করে। বাংলাদেশের বিজয় দিবস একটি আনন্দের ঢেউ যা প্রতিটি নাগরিককে সমানভাবে প্রভাবিত করেছে।
  • বাংলাদেশের বিজয় দিবস মন্দের বিরুদ্ধে ভালোর অপার বিজয়ের প্রতীক! এটা ছিল অন্যায়ের বিরুদ্ধে হকের উদযাপন।
  • দেশের স্বাধীনতার জন্য জীবন উৎসর্গকারী প্রত্যেক যোদ্ধা চিরকাল মানুষের হৃদয়ে থাকবেন। বাংলাদেশের বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা
  • জাতি থেকে অনুপ্রবেশকারীদের তাড়ানোর চেষ্টায় প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধার ঘুমহীন রাত ছিল। এই দিনে, আমরা তাদের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা প্রদর্শন করি এবং তাদের সাহসিকতার জন্য তাদের শ্রদ্ধা জানাই। বাংলাদেশের বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা

তাই বাঙালি জাতি প্রতিবছরে বিজয় দিবস পালন করে। ১৯৭১ সালে ১৬ই ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর সৈন্যরা আত্মসমর্পণ করে শত্রুমুক্ত হয় এবং বিজয় ঘোষণা করা হয় এই দিন। ১৬ই ডিসেম্বর সমগ্র বাংলাদেশ আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠে। প্রতিবছরে 16 ডিসেম্বর বিজয় দিবস পালন করা হয়। তাই এই বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন ধরনের পোস্টার ছাপানো হয়। আপনি যদি পোস্টারের ডিজাইন এবং পোস্টারের স্লোগান অনলাইনে অনুসন্ধান করেন তাহলে আমাদের এই অনুচ্ছেদ থেকে পোস্টার সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা ও স্লোগান ব্যবহার করতে পারবেন। নিচে ১৬ ডিসেম্বর এর বিভিন্ন ধরনের পোস্টার আলোচনা করা হয়েছে।

পরিশেষে, বিজয়ের মাস উপলক্ষে সারাদেশব্যাপী নানা ধরনের আয়োজন যেমন শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ শোভাযাত্রা খোঁজখবর প্যারেড নৌকাবাজ বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলা এবং সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ইত্যাদি উদযাপন করা হয়। তাই বিজয় দিবসের পোস্টার সম্পর্কে আজকের এই অনুচ্ছেদে আলোচনা করা হয়েছে। আশা করি মনোযোগ সহকারে পড়ে আপনি পোস্টারে ব্যবহারকৃত স্লোগান এবং পোস্টারের ডিজাইন এখান থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন। ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button