টিপস

অনলাইন ইনকাম মোবাইল দিয়ে ২০২২ বাংলাদেশ

আপনি কি ঘরে বসে মোবাইল দিয়ে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে চান? কিভাবে মোবাইল দিয়ে ঘরে বসে টাকা ইনকাম করা যায় এ সমস্ত প্রশ্নের উত্তর অনুসন্ধান করছেন? তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন আজকের এই নিবন্ধে আমরা মোবাইল দিয়ে কিভাবে ঘরে বসে সহজে টাকা ইনকাম করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি।

জীবনের সবচেয়ে কঠিন কাজ কর্ম ক্ষেত্রে প্রবেশ করা। কোন কাজ করে টাকা ইনকাম করা এত সহজ নয়। এর পিছনে ব্যাপক সাধনা পরিশ্রম দরকার। আপনি যদি মোবাইল দিয়ে ঘরে বসে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে এর পেছনে আপনাকে পরিশ্রম একাগ্রতা অবশ্যই দরকার হবে। একটা কথা মনে রাখতে হবে যে কোনো পরিশ্রম করলেই তার ফল পাওয়া যাবে। পরিশ্রম কখনো বৃথা যায় না, পরিশ্রম করবেন ফল অবশ্যই আপনি পাবেন। তাই ঘরে বসে বুদ্ধি এবং পরিশ্রম করে আপনি খুব সহজেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আমরা এই নিবন্ধে ঘরে বসে খুব সহজে টাকা ইনকাম করার কিছু ইউনিক আইডিয়া আপনাদের দিয়ে দেবো। এখন মূল পোস্টের আলোচনা শুরু করা যাক।

ইউটিউব চ্যানেল

ঘরে বসে টাকা ইনকাম করার সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম ইউটিউব। অর্থাৎ আপনার হাতের মোবাইল দিয়ে খুব সুন্দর সুন্দর ভিডিও ধারণ করে সেই ভিডিও যদি আপনি ইউটিউবে আপলোড দেন তাহলে অবশ্যই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে। ইউটিউব চ্যানেলটি খুলে 1000 সাবস্ক্রাইবার সহ আপনি ইউটিউবের মনিটাইজেশন এপ্লাই করলে মনিটাইজেশন খুব সহজে পাবেন। তারপর নিয়মিতভাবে ইউটিউব এ ছবি আপলোড করলে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই আপনার ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা সম্ভব হবে। ইউটিউব সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আমাদের এই পোষ্টটি পড়ে নিতে পারেন।

ওয়েবসাইট বা ব্লগিং

আপনি অনলাইনে ওয়েবসাইট বা ব্লগিং করে টাকা ইনকাম করতে পারেন। এর জন্য আপনাকে একটি ডোমেইন কিনতে হবে। ডোমেইন কেনার পর আপনাকে কিছু কিছু বিষয়ে লিখতে হবে। সাধারণত একটি ওয়েবসাইটে 50 থেকে 60 টি পোস্ট দিয়ে গুগল এডসেন্স এর আবেদন করলে গুগল আপনাকে এডসেন্স প্রদান করবে। অ্যাডসেন্স পাওয়ার পর আপনার টাকা ইনকাম শুরু হবে। আপনার একাউন্টে 10 ডলারের বেশি টাকা হলে আপনার বাসার ঠিকানায় পিন নম্বর আসবে। আপনার একাউন্টে পিন ভেরিফাই করলে আপনি টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। আমাদের জানামতে খুব ভালো মানের কিছু ডোমেইন হোস্টিং কেনার ওয়েবসাইট আছে। ডোমেন শপ বিডি সেরকমই একটি ডোমেইন হোস্টিং কেনার জনপ্রিয় ওয়েবসাইট। এখান থেকে খুব সহজে আপনি ডোমেইন কিনে ওয়েবসাইট তৈরি করে চলতে পারবেন।

আর্টিকেল লিখে

আর্টিকেল লিখে খুব সহজেই টাকা ইনস্ট্যান্ট টাকা ইনকাম করা যায়। আমরা ওয়েবসাইট বা ব্লগের কথা বললাম এই ওয়েবসাইট বা ব্লগের জন্য অনেকেই অনলাইনে আর্টিকেল কিনে থাকে। বাংলা এবং ইংরেজি দুই ধরনের আর্টিকেল কিনে থাকে মানুষ। তাই প্রতিদিন নিয়মিত চার-পাঁচটা করে আর্টিকেল লিখে আপনি মোটামুটি মাস শেষে বড় অঙ্কের টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এভাবে নিজের বুদ্ধি বেরেন ব্যয় করে আর্টিকেল লেখায় আপনার কোনো বাড়তি ইনভেস্ট করতে হচ্ছে না, ফলের যতটুক ইনকাম করবেন সবটুকুই আপনার নিজের থাকবে।

ফেসবুক পেজ

বর্তমানে ফেসবুক পেইজ থেকে ব্যাপক সংখ্যক টাকা ইনকাম করা সম্ভব। কোন একটি বিষয়ে আপনি ফেসবুকে পেজ তৈরি করে সেই পেজে যদি আপনার 50 60 হাজার ফলোয়ার থাকে তাহলে ওই পেজ থেকে খুব সহজেই আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। ফেসবুকের এড দেখার বিনিময়ে আপনাকে টাকা প্রদান করবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।আর ফেসবুক পেজ মনিটাইজেশন পেতে কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে। যেমন:

  • ফেসবুক পেজের ফলোয়ার সংখ্যা ১০,০০০ হাজারের বেশি হতে হবে।
  • পেইজটির ভিডিও গুলোতে গত ৬০ দিনে কমপক্ষে ৩০,০০০ ভিউ থাকতে হবে। ভিডিওগুলোর দৈর্ঘ্য তিন মিনিটের বেশি হতে হবে এবং কমপক্ষে ১ মিনিট ধরে দেখতে হবে।
  • In-Stream Ads
  • Fan Subscription
  •  Branded Content
  •  Subscription Groups

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করে অনলাইন ইনকাম

আপনি হয়তো ফ্রিল্যান্সিং এর নাম শুনেছেন? ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা সবচেয়ে জনপ্রিয় একটি অনলাইন মেক মানি সাইট। আপনি হয়তো জানেন না যে মোবাইলে বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং করা যাচ্ছে। এবং একজন সফল ফ্রিল্যান্সার প্রতিমাসে লক্ষ টাকার বেশি ইনকাম করে। মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করতে হলে আপনাকে অবশ্যই ফ্রিল্যান্সিং এর উপর একটি কোর্স করতে হবে। আপনার আশেপাশে পরিচিত বড় ভাই যারা ফ্রিল্যান্সিং করে অথবা অনলাইনে বেশ কিছু ওয়েবসাইট পাওয়া যায় যেগুলোতে ফ্রিল্যান্সিং বিষয় শেখানো হয়। ওই ওয়েবসাইট গুলো থেকে আপনি একটি কোর্স সম্পন্ন করে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।
ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট এ যে কাজগুলি মোবাইল দিয়ে আপনি করতে পারেন:

ট্রানসলেশন
কনটেন্ট রাইটিং
কনটেন্ট রি-রাইটিং
ব্লগ কমেন্টিং
ফোরাম পোস্টিং
ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট
ট্রানস্ক্রিপশন
প্রুফরিডিং
প্রডাক্ট দেস্ক্রিপশন, ইত্যাদি।

Md Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button