টিপসনিউজ

চুল ঘন করার উপায় | পাতলা চুল ঘন করার সবচেয়ে সহজ উপায়

চুল ঘন করার উপায়, বর্তমান সময়ে খুবই একটি সাধারণ প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমার মনে হয় বর্তমান সময়ে সব কিছুতেই ভেজাল থাকার কারণে অকালেই আমাদের চুল পড়ে যাচ্ছে এবং চুল সাদা হয়ে যাচ্ছে। আজকের এই নিবন্ধে আমরা চুল ঘন করার উপায় আলোচনা করতে যাচ্ছি। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী এই আর্টিকেলটি আমরা পাঠকদের উদ্দেশ্যে তৈরি করছি। আমাদের এই টিপসগুলো আপনি ব্যবহার করে খুব সহজেই আপনার চুল ঘন করতে পারবেন।

চুল ঘন করার বেশকিছু পদ্ধতি আছে। আমরা আজকের এই আর্টিকেলের চুল ঘন করার ঘরোয়া পদ্ধতি গুলো আলোচনা করব। এই নিবন্ধ থেকে কোন প্রকার কেমিক্যাল যুক্ত পদ্ধতি আমরা আপনাদের পরামর্শ দেবো না। তাই চুল ঘন করার সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর পদ্ধতি গুলো এখানে তুলে ধরছি।

চুল ঘন করার ঘরোয়া পদ্ধতি

ঘরোয়া পদ্ধতি গুলো চুলের জন্য খুব উপকারী। এজন্য আমরা এই নিবন্ধের চুলের জন্য শুধুমাত্র ঘরোয়া পদ্ধতি গুলো ব্যবহার করব। এই পদ্ধতি ব্যবহার করলে চুল এর কোনো প্রকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয় না। তাই যতটা সম্ভব কেমিক্যাল ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

ডিমের সাদা অংশ

ডিমের সাদা অংশ চুলের জন্য খুব উপকারী। ডিম ভেঙ্গে ডিম থেকে সাদা অংশ আলাদা করে ভালো করে ফাটিয়ে নিয়ে চুলের ওপর ব্রাশের সাহায্যে দিয়ে 20 30 মিনিট পর শ্যাম্পু করলে খুব ভালো উপকার পাওয়া যায়। অনেকেই ডিম মাথায় দিতে পছন্দ করেনা। কিন্তু ডিম মাথায় দিলে চুলের জন্য ভালো উপকার হয়। যেদিন আপনি মাথায় ডিমের সাদা অংশ নেবেন সেদিন আলাদা করে কোন সময় ব্যবহার করতে হয় না।

পেঁয়াজ

চুলের জন্য আরেকটি প্রয়োজনীয় উপকরণ হলো পেঁয়াজ। পেঁয়াজের রস চুলের জন্য খুব উপকারী। পিয়াজ কেটে মাথার চেয়ে অংশে চুলের পরিমাণ কম সেখানে ভালো ভাবে ঘষলে খুব ভালো উপকার পাওয়া যায়। এতে করে মাথার ওই অংশে ব্লাড সার্কুলেশন খুব ভালো হয় এবং সেখানে নতুন করে চুল গজায়। সপ্তাহের দুই-তিনদিন 10 12 মিনিটের জন্য মাথার তালুতে ঘষে ব্যবহার করলে কিছুদিনের মধ্যেই ফল পাওয়া যায়। তাছাড়া নিয়মিত মাথায় পেঁয়াজের রস ব্যবহার করা চুলের জন্য খুব উপকারী।

অ্যালোভেরা

চুলের যত্নের আর একটি প্রয়োজনীয় উপকরণ হলো অ্যালোভেরা। অ্যালোভেরা জেল বের করে চার চামচ মধুর সাথে মিক্স করে সরাসরি মাথার তালুতে লাগিয়ে ফেলুন। তাহলে চুল ঘন করার সাথে সাথে চুল ফেটে পড়া রোধ করবে।

আমলকি

আমলকির রস চুলের জন্য খুব উপকারী। অত্যাধিক ভিটামিন সি থাকে আমলকিতে। নিয়মিত আলুর রস মাথায় দিলে নতুন করে চুল গজায় এবং চুল ঘন ও মজবুত করে। আমলকি কে বেটে রস তৈরি করে সেই রস মাথায় লাগাতে হয়। আপনি নিয়মিত যদি আমলকির রস মাথায় ব্যবহার করেন তাহলে আপনার প্রচুর কালো ঘন এবং মজবুত হবে।

মেথি

পাতলা চুল ঘন করা যায় মেথি ব্যবহারেও। কীভাবে? ২ টেবিল চামচ মেথি সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন ভিজিয়ে রাখা মেথি দানা ছেঁকে নিয়ে এর সাথে হাফ কাপ পরিষ্কার পানি যোগ করে ব্লেন্ডার-এ মসৃণভাবে ব্লেন্ড করে নিন। এবার এই পেস্টটি চুলের গোড়ায় লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। তারপর শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার দিয়ে ভালোভাবে চুল ধুয়ে নিন। এটি সপ্তাহে ১ বার ব্যবহার করুন। চুলের স্বাস্থ্য বজায় রেখে চুলের বৃদ্ধির জন্য মেথি একটি শ্রেষ্ঠ উপকরণ। এটি স্ক্যাল্প-এর প্রদাহ দূর করে, খুশকি তাড়ায় এবং চুল মজবুত করে।

 মেহেদি

পাতলা চুল ঘন করা যায় মেহেদির ছোঁয়াতে। কীভাবে? মেহেদি পাতা অল্প পানি দিয়ে বেটে নিন। আপনি চাইলে এর সাথে নারকেল তেল বা অলিভ অয়েল যোগ করতে পারেন। এবার এটি চুলের গোড়ায় লাগিয়ে শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে চুল আবৃত করে রাখুন ৩০-৩৫ মিনিট। তারপর শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি মাসে ২/৩ বার ব্যবহার করতে পারেন। মেহেদি চুলের আদর্শ খাদ্য। এটি চুলকে ভেতর থেকে মজবুত করে এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। এখন মার্কেটে হেনা প্যাক কিনতে পাওয়া যায়, তাই মেহেদি পাতা বাটাবাটির ঝামেলা এড়াতে সেটাও ইউজ করতে পারেন।

Md Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button