টিপস

টেসলা মোবাইল ফোন কি, ফোনের প্রাইস ২০২৩

টেসলা বিশ্বের মধ্যে একটি বিশাল বড় কার কোম্পানি। তাহলে এবার জানা যাচ্ছে টেসলা কোম্পানির স্মার্টফোন ও লঞ্চ করতে চলছে । সুতরাং বিষয়টি হলো টেসলা স্মার্টফোনে যে সকল বিষয় জানা গিয়েছে তা পুরোপুরি আলোচনা করা হয়নি। টেসলা স্মার্টফোনে বিশ্বের যে কোন কিছু সম্পর্কে জানতে ও বুঝতে সাহায্য করবে বলে মনে করা হয়। টেসলা ফোনটির চার্জের প্রয়োজন হয় না। এটি সোলার এর মাধ্যমে চার্জ হয়ে থাকে যা বিশ্বের কোন ফোনের কথা আজ পর্যন্ত শোনা যায়নি। এটি একটি আমেজিং ব্যাপার। টেসলা স্মার্টফোনটি আবিষ্কার করেছেন এলোন মাক্স। তিনি টেসলা কার আবিষ্কার করার পাশাপাশি টেসলা ফোন আবিষ্কার করেছেন।

টেসলা ফোন টেস্টা লিংকের মাধ্যমে কানেক্টেড। সুতরাং মঙ্গল গ্রহে গিয়েও ইউজাররা ইউজ করতে পারবে। আমরা অবশ্য জানি টেসলা স্মার্টফোনে এমন সব সফটওয়্যার থাকবে তা টেসলা স্মার্টফোন ইউজাররা টেসলা গাড়িগুলো নিঃসন্দেহে ব্যবহার করতে পারবে। টেসলা স্মার্টফোনে রয়েছে স্যাটেলাইট প্রযুক্তি টেসলার এর মডেল Pi সুদর্শন। খুব তাড়াতাড়ি বাজারে আসতে চলেছে টেসলা মোবাইল ফোন। অর্থাৎ মোবাইলের সুবিধা গুলো রীতিমত অবাক ময় বিষয়। পরিবেশ পরিবর্তনের সাথে সাথে পরিবর্তন হবে মোবাইল ফোনটির রং সুতরাং বলা যাচ্ছে 2024 সালে এই ফোনটি বাজার কাপাবে বলে আশা করা যায়।

টেসলা স্মার্ট ফোন রিলিজ ডেট

টেসলা স্মার্টফোনটি আবিষ্কার করেছেন এলোন মাক্স। বিশ্বের ধনীদের মধ্যে তার অবস্থান সবচাইতে উঁচু স্থানে। টেসলা ফোনের গুরুত্বের কথা যতই বলা হবে ততই মনে হবে কম বলা হচ্ছে। সমগ্র বিশ্বের মানুষকে তাক লাগিয়ে দিতে পারবে এই সুন্দর ও চমৎকার স্মার্ট ফোন। আপনাদের অনেকের মনে ইচ্ছা জাগতে পারে এটি কেমন ধরনের ফোন যার মাধ্যমে এতকিছু সত্যিই কি সম্ভব,নাকি মিথ্যা। আশ্চর্য হলেও এটাই সত্য ২০২৩ সালের শেষে এবং 2023 এর শুরুতে এটি অফিশিয়াল ভাবে রিলিজ হতে চলেছে। বিশ্বে সমস্ত অজানা বিষয় হাতের মুঠোয় আনতে সাহায্য করবে এই সুদর্শন স্মার্ট ফোন।

টেসলা স্মার্টফোনের প্রাইস

টেসলা ফোনটি এখনো লঞ্চ করা হয়নি, লঞ্চ করার পর জানতে পারবে এটি সঠিক দাম। কিন্তু ধারণা করা যাচ্ছে টেসলার দামটি বেশ চড়া দামে লঞ্চ করবে। কিন্তু যতোই চড়া দামি হোক না কেন প্রতিযোগিতাদের টেক্কা দিতে প্রস্তুত ফোনটি। ফোনটির দাম হতে পারে 800 থেকে 1200 মার্কিন ডলারে যা বাংলাদেশী টাকায় 67 হাজার থেকে 1 লাখের মতো। আপনাদের কি মনে হয় এই মাক্স এর স্মার্টফোন বাজারে প্রতিযোগিতা করে টিকে থাকতে পারবে। আপনার মতামত কমেন্টে জানাবেন।

টেসলা স্মার্টফোন ফুল স্পেসিফিকেশন

টেসলা স্মার্টফোনটি আবিষ্কার করা হয়েছে আধুনিক যন্ত্রপাতি এবং আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে । এই ফোনটির কালার কম্বিনেশন পরিবর্তন করা যায়। টেসলা স্মার্টফোনটি সম্পর্কে আলোচনার সমূহ:

  • ফোনটির নাম টেসলা স্মার্ট ফোন যার মডেল Pi
  • রিয়েল প্যানেলের তিনটি ক্যামেরা থাকছে।
  • এ ফোনে একটি স্কাই ব্লু বার্ড থাকছে । উপরে নেভি ব্লু কালার পাট।আর সেটাকে উপরে দেওয়া হয়েছে নীল রঙের বর্ডার।
  • মাছ বরাবর থাকছে একটি বড় টেসলা T লোগো T।
  • এটি 4k লেভেল 6.5 ইঞ্চি স্ক্রিন থাকতে পারে।
  • এ ফোনের মেমোরি থাকবে দুইটি টেরাবাইট অর্থাৎ দুইটি কম্পিউটারের সমান স্মৃতি শক্তি থাকবে টেসলা এ স্যাটেলাইট ফোনে।

পরিশেষে বলা যাচ্ছে , টেসলা স্মার্টফোনটি নিয়ে আমরা উপরে মোটামুটি ধারণা দিয়েছি .এটি একটি জনপ্রিয় স্মার্টফোন । অ্যালোন মাক্স যতটা আত্মবিশ্বাসী, ঠিক ততটাই শক্তিশালী মান নিয়ে বাজারে আনছে পি আই। মহাকাশে থাকে এলোন মাস্ক এর নিজস্ব স্যাটেলাইট ,এর মাধ্যমে সরাসরি ইন্টারনেট পাবেন পি আই।

ফাইভ-জি প্রযুক্তি স্যাটেলাইট ফোনটি হবে আধুনিক প্রযুক্তির যুগে একটি সেরা ফোন। পৃথিবীর ইতিহাসে এটি হবে স্যাটেলাইট মোবাইল। যেটি কিনা বিশ্বে মানুষদের তাক লাগিয়ে দিবে। বর্তমান যুগের সাথে তাল মিলিয়ে তৈরি করেছে এই স্মার্টফোনটি। যা বিশ্বের অন্য কোন ফোন দ্বারা সম্ভব হয়নি।

Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button