নিউজ

বিশ্ব মা দিবস কবে ২০২২? মা দিবসের তারিখ

বিশ্ব মা দিবস কবে? আপনি কি বিশ্ব মা দিবস সম্পর্কে জানতে চান? বিশ্ব মা দিবস কবে অথবা মা দিবস কবে সমস্ত প্রশ্নের উত্তর আজকের এই নিবন্ধে আমরা সংযুক্ত করব। আপনি যদি বিশ্ব মা দিবস সম্পর্কে জানতে চান তাহলে এই নিবন্ধে আপনাকে স্বাগতম। আজকে আমরা বিশ্ব মা দিবসের তারিখ, বিশ্ব মা দিবস বাংলাদেশে কবে পালিত হয়। সমস্ত প্রশ্নের উত্তর আলোচনা করব। সুতরাং, বিশ্ব মা দিবস সম্পর্কে জানতে হলে এই নিবন্ধটি আপনাকে ভালো করে পড়তে হবে।

বিশ্ব মা দিবস কবে ২০২২?

মা দিবস বা মাতৃ দিবস হল পৃথিবীর সকল মায়েদের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের একটি বিশেষ দিন। কারণ পৃথিবীতে সকল কিছুর মূল্য পরিশোধ করা হলেও মায়ের ভালোবাসা আমার স্নেহ মাতৃত্ব বোধের কখনো দাম দেওয়া সম্ভব নয়। তাই এই অমূল্য সম্পর্ককে সম্মান জানাতে পৃথিবীব্যাপী বিশ্ব মা দিবস পালনের ইতিহাস রচিত হয়েছে। পৃথিবীর সকল মায়েদের প্রতি সম্মান জানানোর জন্য প্রতিবছর ৮ মে বিশ্ব মা দিবস হিসেবে পালন করা হয়। এইদিন পৃথিবীতে যথাযোগ্য ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে মা দিবস পালিত হয়ে থাকে। আমরা আমাদের এই ওয়েবসাইটে পক্ষ থেকে বিশ্ব মা দিবসে সকল মা দের প্রতি জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা।

বিশ্ব মা দিবস ৮ মে।

বিশ্ব মা দিবসের ইতিহাস

বিশ্ব মা দিবসের ইতিহাস পর্যালোচনা করলে বুঝা যায় বেশকিছু উপ কথা প্রচলিত আছে। একটি গোষ্ঠীর মধ্যে এই দিনটি সূত্রপাত প্রাচীন গ্রিসে মাতৃ আরাধনার প্রথা থেকে সেখানে গ্রীক দেবতাদের মধ্যে এক বিশিষ্ট দেবী সিবেল এর উদ্দেশ্যে পালন করা হতো একটি উৎসব।

জুলিয়া ওয়ার্ড হোই রচিত “মাদার্স ডে প্রক্লামেশন” বা “মা দিবসের ঘোষণাপত্র” মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মা দিবস পালনের গোড়ার দিকের প্রচেষ্টাগুলির মধ্যে অন্যতম। আমেরিকান গৃহযুদ্ধ ও ফ্রাঙ্কো-প্রুশীয় যুদ্ধের নৃশংসতার বিরুদ্ধে ১৮৭০ সালে রচিত হোই-এর মা দিবসের ঘোষণাপত্রটি ছিল একটি শান্তিকামী প্রতিক্রিয়া। রাজনৈতিক স্তরে সমাজকে গঠন করার ক্ষেত্রে নারীর একটি দায়িত্ব আছে, হোই-এর এই নারীবাদী বিশ্বাস ঘোষণাপত্রটির মধ্যে নিহিত ছিল।

Md Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button