স্টাটাস

স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস ২০২২ (২৬ মার্চ)

আপনি কি স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস অনলাইন অনুসন্ধান করছেন? তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন। এ নিবন্ধে আমরা স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস আলোচনা করতে যাচ্ছি। আপনি চাইলে আমাদের এই নিবন্ধ থেকে স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস সংগ্রহ করে নিতে পারবেন। আমরা শুধুমাত্র আপনাদের কথা বিবেচনা করে আজকের এই নিবন্ধের স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস সংগ্রহ করেছি। আপনারা আমাদের ওয়েবসাইট থেকে স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস সংগ্রহ করে নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে পারবেন। ফেসবুকে আপনাদের সকল বন্ধুদের মুখে স্বাধীনতার শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়ে দিতে। আপনাদের সাহায্য করার জন্যে আজকে আমার এই নিবন্ধ।

স্বাধীনতা দিবস বাঙালি জাতির কাছে অত্যন্ত গৌরবের একটি বিষয়। বহু ত্যাগ এবং রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মাধ্যমে আমরা পেয়েছি আমাদের স্বাধীনতা। এক সাগর রক্ত দিতে হয়েছিল এই স্বাধীনতার জন্য। তাই আমরা আমাদের স্বাধীনতার মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখার জন্য সারাজীবন চেষ্টা করে যাব। আজকের আমি এই নিবন্ধে আমরা স্বাধীনতা দিবস নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস আলোচনা করছি। স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের জন্য আমরা অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ট্যাটাস দিয়ে থাকি। যত সোশ্যাল মিডিয়া আছে তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুক। ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিলে অন্য যেকোন সোশ্যাল মিডিয়ার চেয়ে বেশি মানুষ পড়তে পারবে। তাই আজকের এই নিবন্ধে আমরা স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস সংযুক্ত করেছি।

স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস ২০২২

স্বাধীনতা প্রত্যেক জাতির কাছে বহু আকাঙ্ক্ষিত একটি বস্তু। প্রত্যেক জাতি তার স্বাধীনতা এমনি এমনি লাভ করেনি। সেই স্বাধীনতার পেছনে আছে বহু রক্ত সংগ্রাম এবং অজস্র মানুষের পরিশ্রম। বহু কষ্টে অর্জিত এই স্বাধীনতাকে অক্ষুন্ন রাখার জন্য প্রত্যেক জাতির সদা সর্বদা সচেষ্ট থাকে। বাঙালিরা তাদের নিজস্ব স্বাধীনতা রক্ষার জন্য সর্বস্ব দিয়ে চেষ্টা করে থাকে। স্বাধীনতার এই দিবসে আপনি যদি স্বাধীনতার শুভেচ্ছা বার্তা অর্থাৎ স্বাধীনতার ফেসবুক স্ট্যাটাস অনলাইনে অনুসন্ধান করেন? তাহলে আমাদের এই ওয়েবসাইট থেকে পেয়ে যাবেন।

”এক নদী রক্ত পেরিয়ে বাংলার স্বাধীনতা আনলে যারা আমরা তোমাদের ভুলবনা…” — বাংলার স্বাধীনতার জন্য যাদের রক্তের নদী বয়ে গিয়েছিল বাংলার বুকে সেই সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায়– স্বাধীনতা দিবস সফল হোক।

”প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ জীবন বাংলাদেশ আমার মরণ বাংলাদেশ…” আমাদের জীবন-মরণ এই বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে সবাইকে শুভেচ্ছা

””কি বলার কথা, কি বলছি। কি শোনার কথা কি শুনছি। কি দেখার কথা কথা কি দেখছি। … ত্রিশ বছর পরেও আমি স্বাধীনতাটাকে খুঁজছি।”” ভাই অনেক বড় বড় কথা না বলে বরং দেশের জন্য আমরা কি করেছি এবং কি করতে পারি সেটাই ভাবি এবং আমাদের পক্ষে যতটুকু সম্ভব ততটুকু করার চেষ্টা করি।

আর একটি দিনও নয়। এখনই এই মুহুর্ত থেকে আসুন সবাই দেশের জন্য কাজ করি। নেতাদের জন্য অপেক্ষা না করে আমরা যে যেখানে আছি সেখান থেকে যে ভাবে যতটুকু সম্ভব দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কাজ করি। আর কত এভাবে পিছিয়ে থাকব? আমরা সবাই মিলেই পারি আমাদের সেই সব শহীদ ভাইদের রক্তের মুল্যায়ন করতে।

আমরা কি করলাম? আমাদের দেশের নেতারা কি করল? এই বিতর্ক দুরে রেখে বরং আমি দেশের জন্য কি করলাম? আজ কি করলাম? এবং আগামী কাল কি করব? সেটাই ভাবি এবং আমার পাশের ভাইকেও এ ব্যাপারে সহযোগীতা এবং উদ্বুদ্ধ করি।

”স্বাধীনাতা তুমি ……” মহান স্বাধীনতার জন্য যে সকল অকুতোভয় বীর সন্তানরা বিলিয়ে দিয়েছিলেন তাদের তাজা প্রাণ সে সকল শহীদদের স্মরণে….. সকলকে মহাণ স্বাধীনতা দিবসের অভিনন্দন।

”একটি বাংলাদেশ তুমি… জনতার, সারা বিশ্বের বিস্ময় তুমি আমার অহংকার।” সারা বিশ্বের বিস্ময় এই বাংলাদেশের জন্য আসুন আমরা সবাই মিলে কাজ করি। স্বাধীনতার সুবর্ণ  জয়ন্তীতে এটাই হোক আমাদের শপথ।

তোমার মাঝেই স্বপ্নের শুরু,তোমার মাঝেই শেষ ৷তবু ভালো লাগা ভালোবাসাময় তুমি,আমার বাংলাদেশ ৷

২৬শে মার্চ তুমি নও শুধু একটি তারিখ। নও একটি স্মৃতি চিহ্ন, তুমি লাখো শহীদের রক্তের প্রতিক। তুমি চির বঞ্চিতের হুংকার,আবার তুমিই দিয়েছো চির শান্তি, ৩০ লক্ষ শহীদ আত্মার।

২৬ মার্চ তুমি একটি উজ্জ্বল নক্ষত্র। বাংলা মায়ের আকাশ পাড়ে, তোমার জন্যই আজি বইছে আনন্দ, উল্লাস স্নেহ মাখা বাংলার হৃদয় জুড়ে। সকলকে মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি, তাই আমি পৃথিবীর রূপ খুঁজিতে যাই না আর – জীবনানন্দ দাশ

স্বাধীনতা তুমি পিতার কোমল জায়নামাজের উদার জমিন। – শামসুর রাহমান

তোমার বুকের মধ্যে আমাকে লুকিয়ে রাখো আমি এই মাটি ছেড়ে, মাটির সান্নিধ্য ছেড়ে, আকাশের আত্মীয়তা ছেড়ে, চাই না কোথাও যেতে, কোথাও যেতে – মহাদেব সাহা

Md Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button