স্টাটাস

২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস, শুভেচ্ছা বার্তা ২০২২

২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস ২০২২। 26 শে মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস। এদিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জেলে বসে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন। কিন্তু তার পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণা করেছিলেন মেজর জিয়াউর রহমান। তাই আজকের এই নিবন্ধে আমরা 26 শে মার্চ স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস সম্পর্কে আলোচনা করতে চাচ্ছি। আপনি যদি স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস অনলাইনে অনুসন্ধান করেন তাহলে এই নিবন্ধে আপনাকে স্বাগতম।

মহান স্বাধীনতা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করার জন্য এবং স্বাধীনতা দিবসের আনন্দ সবার মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য এবং স্বাধীনতার সুফল সকলের মধ্যে উপলব্ধি বোধ তৈরি করার জন্য আপনি নিজের ফেসবুক ওয়ালে স্ট্যাটাস দিতে পারেন। সেরকম কিছু স্ট্যাটাস আজকের এই নিবন্ধে বলা যুক্ত করেছি।

স্বাধীনতা প্রত্যেকটি দেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। বাংলাদেশ 1971 সালে পশ্চিম পাকিস্তানিদের হাত থেকে স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনে। 25 শে মার্চ কালো রাতে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এদেশের সাধারন জনগনের উপর নির্বিচারে গুলি করে । তারা অপারেশন সার্চলাইট নামে এদেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে ক্রসফায়ার করে মেরে ফেলে। তারা ঢাকার ঘুমন্ত নিরস্ত্র বাঙালিদের উপর নির্বিচারে গুলি চালায় এবং অগ্নিসংযোগ করে। ওই দিন শেষ রাত্রিবেলা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। অবস্থার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দেন। এবং পরদিন 26 শে মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করেন মেজর জিয়াউর রহমান। তাই আজকের মহান স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস আমরা আলোচনা করব।

স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস ২০২২

26 শে মার্চ স্বাধীনতা দিবস বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি দিন। এদিন পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশ নামে নতুন একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্রের জন্ম হয়েছিল। পৃথিবীর মানুষ বাংলাদেশকে স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া শুরু করেছিল। তাই বাঙালি জাতীয় জীবনে এই দিনটি অত্যন্ত আনন্দদায়ক এবং খুশির দিন। যদি স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় স্ট্যাটাস দিতে চান তাহলে এই নিবন্ধ থেকে স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক স্ট্যাটাস গুলো সংগ্রহ করে নিতে পারবেন।

”এক নদী রক্ত পেরিয়ে বাংলার স্বাধীনতা আনলে যারা আমরা তোমাদের ভুলবনা…” — বাংলার স্বাধীনতার জন্য যাদের রক্তের নদী বয়ে গিয়েছিল বাংলার বুকে সেই সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায়– স্বাধীনতা দিবস সফল হোক।

”প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ জীবন বাংলাদেশ আমার মরণ বাংলাদেশ…” আমাদের জীবন-মরণ এই বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে সবাইকে শুভেচ্ছা।

স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা
স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা

”স্বাধীনাতা তুমি ……” মহান স্বাধীনতার জন্য যে সকল অকুতোভয় বীর সন্তানরা বিলিয়ে দিয়েছিলেন তাদের তাজা প্রাণ সে সকল শহীদদের স্মরণে….. সকলকে মহাণ স্বাধীনতা দিবসের অভিনন্দন।

”একটি বাংলাদেশ তুমি… জনতার, সারা বিশ্বের বিস্ময় তুমি আমার অহংকার।” সারা বিশ্বের বিস্ময় এই বাংলাদেশের জন্য আসুন আমরা সবাই মিলে কাজ করি। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে এটাই হোক আমাদের শপথ।

তোমার মাঝেই স্বপ্নের শুরু,তোমার মাঝেই শেষ ৷তবু ভালো লাগা ভালোবাসাময় তুমি,আমার বাংলাদেশ ৷

২৬শে মার্চ তুমি নও শুধু একটি তারিখ। নও একটি স্মৃতি চিহ্ন, তুমি লাখো শহীদের রক্তের প্রতিক। তুমি চির বঞ্চিতের হুংকার,আবার তুমিই দিয়েছো চির শান্তি, ৩০ লক্ষ শহীদ আত্মার।

২৬ মার্চ তুমি একটি উজ্জ্বল নক্ষত্র। বাংলা মায়ের আকাশ পাড়ে, তোমার জন্যই আজি বইছে আনন্দ, উল্লাস স্নেহ মাখা বাংলার হৃদয় জুড়ে। সকলকে মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

”কি বলার কথা, কি বলছি। কি শোনার কথা কি শুনছি। কি দেখার কথা কথা কি দেখছি। … ত্রিশ বছর পরেও আমি স্বাধীনতাটাকে খুঁজছি।”” ভাই অনেক বড় বড় কথা না বলে বরং দেশের জন্য আমরা কি করেছি এবং কি করতে পারি সেটাই ভাবি এবং আমাদের পক্ষে যতটুকু সম্ভব ততটুকু করার চেষ্টা করি।

আর একটি দিনও নয়। এখনই এই মুহুর্ত থেকে আসুন সবাই দেশের জন্য কাজ করি। নেতাদের জন্য অপেক্ষা না করে আমরা যে যেখানে আছি সেখান থেকে যে ভাবে যতটুকু সম্ভব দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কাজ করি। আর কত এভাবে পিছিয়ে থাকব? আমরা সবাই মিলেই পারি আমাদের সেই সব শহীদ ভাইদের রক্তের মুল্যায়ন করতে।

আমরা কি করলাম? আমাদের দেশের নেতারা কি করল? এই বিতর্ক দুরে রেখে বরং আমি দেশের জন্য কি করলাম? আজ কি করলাম? এবং আগামী কাল কি করব? সেটাই ভাবি এবং আমার পাশের ভাইকেও এ ব্যাপারে সহযোগীতা এবং উদ্বুদ্ধ করি।

স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা
স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা বার্তা

স্বাধীনতা দিবসের ফেসবুক পোস্ট ২০২২

এই স্বাধীনতা তখনি আমার কাছে প্রকৃত স্বাধীনতা হয়ে উঠবে, যেদিন বাংলার কৃষক-মজুর ও দুঃখী মানুষের সকল দুঃখের অবসান হবে
– বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

সাংস্কৃতিক স্বাধীনতা ছাড়া রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক স্বাধীনতা অর্থহীন। তাই মাটি ও মানুষকে কেন্দ্র করে গণমানুষের সুখ শান্তি ও স্বপ্ন এবং আশা-আকাঙ্খাকে অবলম্বন করে গড়ে উঠবে বাংলার নিজস্ব সাহিত্য-সংস্কৃতি।
– বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

যে মাঠ থেকে এসেছিল স্বাধীনতার ডাক, সেই মাঠে আজ বসে নেশার হাট
– রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ

জাতির পতাকা খামচে ধরেছে আজ পুরোনো শকুন
– রুদ্র মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ

আমি, মেজর জিয়া, বাংলাদেশ লিবারেশন আর্মির প্রাদেশিক কমাণ্ডার-ইন-চিফ, শেখ মুজিবর রহমানের পক্ষে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করছি
– জিয়াউর রহমান

স্বাধীনতা তুমি – শহীদ মিনারে অমর একুশে ফেব্রুয়ারির উজ্জ্বল সভা
– শামসুর রাহমান

স্বাধীনতা তুমি – রোদেলা দুপুরে মধ্যপুকুরে গ্রাম্য মেয়ের অবাধ সাঁতার
– শামসুর রাহমান

Md Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button