আইপিএলস্পোর্টস

আইপিএল নিলাম 2022 – কে কোন দলে, কার দাম কত

আইপিএল নিলাম 2022, আইপিএলে কোন খেলোয়ার কোন দলে খেলবে এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর আপনি যদি অনলাইনে অনুসন্ধান করেন তাহলে এই নিবন্ধের স্বাগতম। আইপিএল 2020 এর নিলাম 12 এবং 13 ই ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। এই নিলামে 590 জন খেলোয়াড় অংশগ্রহণ করবে। 590 জন খেলোয়াড়ের মধ্য থেকে দশটি দল তাদের দল গঠন করবে। তাই আইপিএল মেগা অ্যাকশন এর সকল ক্রিকেটপ্রেমী দর্শকদের আকর্ষণ থাকে আইপিএল নিলামের দিকে। এই নিবন্ধে আমরা আইপিএল নিলাম সম্পর্কে আলোচনা করব এবং আইপিএলে কোন দল কিরকম খেলোয়াড় নিয়ে দল গঠন করল সেই বিষয়ে আপনাদের জানাবো।

পৃথিবীতে প্রচলিত ক্রিকেট টুর্নামেন্ট গুলোর মধ্যে সবচেয়ে ব্যয়বহুল টুর্নামেন্ট হলো আইপিএল। আইপিএলে পৃথিবীর সকল ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোর থেকে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ টাকা খরচ হয়। দশটি ফ্র্যাঞ্চাইজি টাকার বস্তা নিয়ে খেলোয়াড় কেনার জন্য বসে পড়বে । এর আগে আইপিএলে সর্বোচ্চ 8 টি দল অংশগ্রহণ করত। এবার এই প্রথম আইপিএলে দশ টি দল অংশগ্রহণ করছে। এর আগে আইপিএল 2022 এর নতুন নিয়ম অনুযায়ী একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি সর্বোচ্চ তিনটি খেলোয়াড় কে ধরে রাখার সিদ্ধান্ত দিয়েছিল ইন্ডিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল। এই সূত্র অনুযায়ী ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো সর্বোচ্চ তিন জন খেলোয়াড় কে ধরে রেখেছে এবং বাকি খেলাগুলো কে নিলামের জন্য ছেড়ে দিয়েছে। নিলাম থেকে খেলার গুলোকে দলে অংশগ্রহণ করাতে হবে। তাই ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো পছন্দের প্লেয়ার কোন দলে ভেড়াতে উঠেপড়ে লেগে পড়বে নিলামে। আইপিএল নিলাম শেষে দলগুলো কিরকম হবে সেগুলো আমরা দেখে নেবো।

আইপিএল সময়সূচি ২০২২

আইপিএল নিলাম 2022

2022 আইপিএলের নিলামের জন্য 590 জন খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছে। এর মধ্যে ইন্ডিয়ার 256 জন খেলোয়াড় এবং অন্যগুলো বিদেশি ক্রিকেটার। আইপিএলের নিয়ম অনুযায়ী একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি সর্বোচ্চ 4 জন বিদেশি খেলোয়াড় দলে খেলতে পারে। কিন্তু একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি চাইলে যতো খুশি ততো বিদেশি খেলোয়াড় কিনতে পারবে নিলাম থেকে। তাই পৃথিবী বিখ্যাত বিখ্যাত খেলোয়াড়দের নিজ দলে ফেরানোর জন্য উঠেপড়ে লাগবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। আইপিএল নিলামে সর্বোচ্চ 2 লাখ ভিত্তিমূলে ক্যাটাগরি খেলোয়াড় নিলামে অংশগ্রহণ করবে। এই নিলামে থেকে সর্বোচ্চ ভিত্তিমূল্য খেলোয়াড়দের সর্বাধিক অগ্রাধিকার দিয়ে ক্রয় করবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো।আইপিএল নিলামের নিয়ম অনুযায়ী নিলাম বহির্ভূতভাবে কিছু কিছু খেলোয়াড় কে দুইটি নিয়মের আওতায় দলে ধরে রাখতে পারবে। সেই দুটি নিয়মের বিশদ বিবরণ নিচে দেওয়া হল।

ডাইরেক্ট রিটেনশন – এর অর্থ হল মালিক সরাসরি RTM ব্যবহার না করে প্রদত্ত সংখ্যক প্লেয়ার ধরে রাখতে পারবেন।

রাইট টু ম্যাচ (RTM) – একটি দল বিজয়ী মূল্যের সমান সঠিক অর্থ প্রদান করে মেগা নিলামে একজন খেলোয়াড়কে ধরে রাখতে RTM কার্ড ব্যবহার করতে পারে।.

আইপিএল নিলাম ২০২২ লাইভ আপডেট

২ কোটির ভিত্তিমূল্যের পেসার যাদবকেও নিয়ে নিল কলকাতা।

১.৫ কোটিতে নিশাম রাজস্থানে

লুভনিথ সিসোদিয়াে ২০ লাখে বেঙ্গালুরুতে

ডেভিড উইলিকে ২ কোটিতে পেল বেঙ্গালুরু

মোহাম্মদ নবীকে ১ কোটিতে নিল কলকাতা

৩০ লাখে অর্জুন টেন্ডুলকার মুম্বাইয়ে

এলিস ৭৫ লাখে পাঞ্জাবে

টিম সেইফার্ট ৫০ লাখে দিল্লিতে। গ্লেন ফিলিপসকে চাইছে হায়দরাবাদ.১.৫ কোটির ভিত্তিমূল্যেই নিউজিল্যান্ডের উইকেটকিপারকে নিয়ে নিল হায়দরাবাদ।

নায়ার ১.৪ কোটিতে রাজস্থানে

ক্রিস জর্ডানের জন্য ৩.৬ কোটি রুপি

এভিন লুইস আরেক ক্রিকেটার যিনি দ্বিতীয় দফায় দল পেলেন। ভিত্তিমূল্য ২ কোটি রুপিতে তাঁকে নিয়েছে লক্ষ্ণৌ।

দল পেয়েছেন অ্যালেক্স হেলসঃ নিলামে প্রথম ডাকে দল পাননি ইংলিশ ওপেনার হেলস। তবে এবার কলকাতা টেনে নিয়েছে তাঁকে। ভিত্তিমূল্য ১.৫ কোটিতেই।

লুঙ্গি এনগিডি বিক্রি হলেন ৫০ লাখে। রাবাদার সাবেক দল দিল্লি কিনেছে তাঁকে।

৫৫ লাখে নিজেদের সাবেক ব্যাটসম্যান রিঙ্কু সিংকে দলে ফিরিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। ২০ লাখে লক্ষ্ণৌতে গিয়েছেন মনন ভোহরা

৫০ লাখে লঙ্কান স্পিনার মহিশ থিকসানাকে দলে নিয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস, যিনি রহস্য স্পিনার বলে খ্যাত। চেন্নাইয়ের সাবেক স্পিনার করণ শর্মা দল পাননি

নিজেদের সাবেক লেগ স্পিনার ময়ঙ্ক মারখাণ্ডেকে ৬৫ লাখে দলে ফিরিয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। ওদিকে দক্ষিণ আফ্রিকান লেগ স্পিনার তাবরাইজ শামসি ও আফগান স্পিনার কায়েস আহমেদ দল পাননি। লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস ৫০ লাখে কিনেছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের সাবেক স্পিনার শাহবাজ নাদিমকে

পেসার জয়দেব উনাদকাট ১ কোটি ৩০ লাখে গিয়েছেন মুম্বাইতে

ভারতীয় পেসার নবদীপ সাইনি গত মৌসুমে খেলেছিলেন কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে, এবার ২ কোটি ৬০ লাখে গিয়েছেন রাজস্থানে। কেউ কেনেনি ক্যারিবীয় পেসার শেলডন কটরেলকে

ভারতীয় বাঁহাতি পেসার চেতন সাকারিয়াকে ৪ কোটি ২০ লাখে কিনেছে দিল্লি ক্যাপিটালস। ৫০ লাখে সন্দ্বীপ শর্মাকে কিনেছে পাঞ্জাব কিংস

লঙ্কান পেসার দুষ্মন্ত চামিরাকে ২ কোটিতে দলে ভিড়িয়েছে লক্ষ্ণৌ, ওদিকে দল পাননি চেন্নাই সুপার কিংসের সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার লুঙ্গি এনগিদি

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের সাবেক পেসার সৈয়দ খলিল আহমেদের জন্য সোয়া ৫ কোটি খরচ করেছে দিল্লি ক্যাপিটালস।

গতবার ৯ কোটি ২৫ লাখ পেয়েছিলেন চেন্নাইয়ের কাছ থেকে, এবার এক কোটিও জুটল না। ভারতের স্পিনিং অলরাউন্ডার কৃষ্ণপ্পা গৌতমকে ৯০ লাখে কিনে নিয়েছে নতুন দল লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস

ভারতীয় অলরাউন্ডার শিভাম দুবেকে পাওয়ার লড়াইকে নেমেছিল চেন্নাই সুয়ার কিংস, পাঞ্জাব কিংস, লক্ষ্ণৌ সুপার কিংস। শেষমেশ ৪ কোটিতে চেন্নাইতে ঠাঁই হয়েছে তাঁর

দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার মার্কো ইয়ানসেনকে ৪ কোটি ২০ লাখে কিনেছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। গতবার মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের হয়ে খেলেছিলেন তিনি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের অলরাউন্ডার ওডিন স্মিথের জন্য হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে হারিয়ে ছয় কোটি রুপিতে বিজয়ী পাঞ্জাব

ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার ডমিনিক ড্রেকসকে ১ কোটি ১০ লাখে ও ভারতীয় অলরাউন্ডার জয়ন্ত যাদবকে ১ কোটি ৭০ লাখে কিনল গুজরাট

ইংলিশ অলরাউন্ডার লিয়াম লিভিংস্টোনকে নিয়ে দলগুলোর আগ্রহ থাকবে, আগেই জানা গিয়েছিল। তাই বলে এত, সেটা কেউ বোঝেনি। সাড়ে ১১ কোটিতে লিভিংস্টোনকে কিনে নিয়েছে পাঞ্জাব কিংস। এবার আইপিএলে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে দামি ক্রিকেটার লিভিংস্টোন

এক কোটি ১০ লাখে দিল্লিতে গেলেন মানদীপ সিং

এক কোটি রুপি ভিত্তিমূল্যে কলকাতা নাইট রাইডার্স কিনে নিয়েছে ব্যাটসম্যান অজিঙ্কা রাহানাকে।

মুম্বাই ইন্ডিয়ানস, পাঞ্জাব কিংস আর সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে ২ কোটি ৬০ লাখ রুপিতে মার্করাম পাড়ি জমিয়েছেন সানরাইজার্সে।

২০ লাখ ভিত্তিমূল্য আর সাই কিশোরের। কিন্তু এই লেগ স্পিনার তার রাজ্য দলের হয়ে দারুণ ফর্মে আছেন। তাই তাঁকে পেতে রীতিমতো লড়াই হলো। ৬ দলের লড়াই শেষে গুজরাট তাঁকে পেল ৩ কোটিতে।

আফগান নুরের দাম ৩০ লাখ ১৭ বছর পূর্ণ হওয়ার আগেই বিগ ব্যাশ ও পাকিস্তান সুপার লিগ খেলেছেন আফগানিস্তানের বাঁহাতি লেগ স্পিনার নুর। এবার আইপিএলেও খেলবেন। গত মাসে ১৭ পূর্ণ করা নুরকে নিয়েছে গুজরাট টাইটানস।

২০ লাখের আভেশ ১০ কোটি। গত আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে ২৪ উইকেট পেয়েছিলেন আভেশ খান। তবু এই আইপিএলে নিজের ভিত্তিমূল্য মাত্র ২০ লাখ রেখেছিলেন এই পেসার।

২০২০ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে গতির ঝড় তুলেছেন তিয়াগী। গত আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালসে খেলেছেন এই ফাস্ট বোলার। এবার মাত্র ২০ লাখ রুপি ভিত্তি মূল্য ছিল তাঁর। ভারতীয় ফাস্ট বোলারকে দলে টানার জন্য শুরুতে লড়েছে দিল্লি ও চেন্নাই। একটু পর যোগ দিয়েছে হায়দরাবাদও। ৪ কোটি রুপি দিয়ে জিতেছে তারাই।

অনুজ রাওয়াতের ভিত্তি মূল্য ২০ লাখ। তাঁকে পেতে আগ্রহ দেখিয়েছে আগেই উইকেটকিপার কিনেছে এমন দুটি দল। দীনেশ কার্তিককে কেনা রয়াল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু দ্বিতীয় উইকেটকিপারের জন্য ৩ কোটি ৪০ লাখ খরচ করেছে।

উইকেটকিপার কেএস ভরতকে দিল্লি দিচ্ছে ২ কোটি।

বেবি এবিকে ৩ কোটি রুপিতে নিয়েছে মুম্বাই। তাঁর ভিত্তিমূল্য ছিল ২০ লাখ।

শাহবাজ আহমেদকে গতবারের মতো এবারও পেতে চাইছিল বেঙ্গালুরু। হায়দরাবাদও যোগ দেয়। কিন্তু ২ কোটি ৪০ লাখে বেঙ্গালুরুই পেয়েছে তাঁকে।

বাঁহাতি স্পিন অলরাউন্ডার হারপ্রিত ব্রারের ভিত্তিমূল্য ছিল ২০ লাখ রুপি। গতবার পাঞ্জাবে খেলা এই ক্রিকেটারকে দলটি পেতে চাইছিল আবার। বেঙ্গালুরুও বিড করছিল তাঁর জন্য। কিন্তু পাঞ্জাবই পেয়েছে তাঁকে, ৩ কোটি ৮০ লাখে।

১ কোটি ১০ লাখে কমলেশ নাগরকোটি দিল্লিতে

৯ কোটিতে তেওয়াতিয়া গুজরাটের। আরেকজন ৪০ লাখ রুপির ভিত্তিমূল্যের ক্রিকেটার ৯ কোটিতে বিক্রি হলেন।

শিভাম মাভি কলকাতাতেই খেলেছেন গতবার। তাঁকে দলে ফেরাতে এবার প্রায় আড়াই গুণ ব্যয় হলো দলটির। গতবার ৩ কোটি রুপি ছিল তাঁর দাম।

গত আইপিএলে ২০ লাখ রুপির ভিত্তি মূল্যের শাহরুখ খানকে কিন নিয়েছিল পাঞ্জাব কিংস। প্রীতি জিনতার দল সেবার ৫ কোটি ২৫ লাখ রুপি খরচ করেছিল। এবার ভিত্তি মূল্য বেড়ে ৪০ লাখ হয়েছিল, শাহরুখের দামও বেড়ে হয়েছে ৯ কোটি।

নিজেদের অভিষেক শর্মাকে আবার কিনে আনতে সাড়ে ৬ কোটি রুপি ব্যয় করল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ

রিয়ান পরাগকে পেতে ৩ কোটি ৮০ লাখ রুপি দিচ্ছে রাজস্থান রয়্যালস।

নিলামের ভিত্তিমূল্য প্রকাশের পরই সবাই চমকে উঠেছিলেন। রাহুল ত্রিপাঠি নিজের ভিত্তিমূল্য মাত্র ৪০ লাখ দিয়েছেন কেন? গত আইপিএলে ১৭ ম্যাচে ৩৯৭ করেছিলেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে। ২টি পঞ্চাশ ছিল, রান তুলেছেন ১৪০ স্ট্রাইকরেটে। নিলামে কলকাতা তাঁকে ধরে রাখার চেষ্টা করেছিল, চেন্নাই সুপার কিংসও। তবে শেষ হাসি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের। ৮ কোটি ৫০ লাখ রুপিতে নতুন দলে যাচ্ছেন ত্রিপাঠি।

৬ কোটি ৫০ লাখে যুজবেন্দ্র চাহাল রাজস্থানে

৭৫ লাখের ভিত্তি মূল্যের রাহুল চাহারকে পেতে আগ্রহ দেখিয়েছে পাঁচ দল। হায়দরাবাদ, দিল্লি, মুম্বাই ও রাজস্থানের সঙ্গে এ লড়াইয়ে ৫ কোটি ২৫ লাখ দিয়ে জিতেছে পাঞ্জাব কিংস ।

২ কোটিতে দিল্লিতে কুলদীপ যাদব। বাঁহাতি রিস্ট স্পিনারকে মাত্র ২ কোটিতেই নিয়ে নিয়েছে দিল্লি।

মোস্তাফিজের ভিত্তিমূল্য ছিল ২ কোটি। তাঁকে পেতে বিড করেছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। অন্য কোনো আগ্রহ না দেখানোয় সে দামেই বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসারকে পেয়ে গেছে দিল্লি।

শার্দুল ঠাকুরকে পেতে ১০ কোটি ৭৫ লাখ দিল দিল্লি ক্যাপিটালস

৪ কোটি ২০ লাখে হায়দরাবাদে গেলেন ভুবনেশ্বর কুমার

৭ কোটি ৫০ লাখে মার্ক উড লক্ষ্ণৌতে

জশ হ্যাজলউড খেলবেন কোহলির সঙ্গে। ৭ কোটি ৭৫ লাখ রুপিতে অস্ট্রেলিয়ান পেসারকে নিয়ে নিয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু।

ঝড়ের গতিতে ১০ কোটি নিয়ে গেলেন লকি ফার্গুসন। গত আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সে ১ কোটি ৬০ লাখ রুপি পেয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের ফাস্ট বোলার। এবার ভিত্তিমূল্যই দিয়েছিলেন ২ কোটি। তাঁকে পেতে চারটি দল লড়াই করেছে। শেষ পর্যন্ত গুজরাট টাইটানস পেয়েছে তাঁকে।

প্রসিধ কৃষ্ণাকে ১০ কোটিতে নিল রাজস্থান

ঘরের ছেলেকে ঘরে ফেরাতে ১৪ কোটি রুপি খরচ হলো চেন্নাই সুপার কিংসের। রাজস্থান রয়্যালস ও দিল্লি ক্যাপিটালস বহু চেষ্টাতেও তাঁকে পায়নি। নতুন বলে উইকেট তুলে নিতে পারেন বলে ভারতীয় এই পেসারের প্রতি আগ্রহ ছিল অনেকের।

১ কোটি ভিত্তি মূল্যের বাঁহাতি পেসার নটরাজন গেলেন পুরোনো দলেই। গুজরাট টাইটানস কিছুক্ষণ চেষ্টা করেই হাল ছেড়ে দিয়েছে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরানের জন্য শেষ মুহূর্ত চেষ্টা করেও পারল না কলকাতা নাইট রাইডার্স। ১০ কোটি ৭৫ লাখ রুপিতে পাঞ্জাব কিংস থেকে সানরাইজার্স হায়দরাবাদে পাড়ি জমিয়েছেন তিনি

কলকাতা নাইট রাইডার্স থেকে এবার বিরাট কোহলির বেঙ্গালুরুতে পাড়ি জমাচ্ছেন উইকেটকিপার দিনেশ কার্তিক। তাঁর দাম সাড়ে ৫ কোটি

৬ কোটি ৭৫ লাখে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ থেকে পাঞ্জাব কিংসে পাড়ি জমিয়েছেন ইংলিশ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারস্টো।

ঘরের ছেলেকে ঘরে ফিরিয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। তবে তাতে খরচ হয়েছে ১৫ কোটি ২৫ লাখ। এই আকাশছোঁয়া মূল্যে ঘরে ফিরেছেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঈশান কিষান

৬ কোটি ৭৫ লাখে চেন্নাই সুপার কিংস দলে নিয়েছে দুই কোটি রুপি ভিত্তিমূল্যের ব্যাটসম্যান অম্বাতি রাইড়ুকে। রাইড়ু আগেও চেন্নাইতেই খেলতেন

অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মিচেল মার্শকে সাড়ে ৬ কোটি রুপিতে দলে ভিড়িয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস

৮ কোটি ২৫ লাখে লোকেশ রাহুলের লক্ষ্ণৌ সুপারজায়ান্টসে গিয়েছেন অলরাউন্ডার ক্রুনাল পান্ডিয়া

৮ কোটি ৭৫ লাখের বিনিময়ে সানরাইজার্স হায়দরবাদে পাড়ি জমিয়েছেন স্পিনিং অলরাউন্ডার ওয়াশিংটন সুন্দর

১০ কোটি ৭৫ লাখে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু দলে ভেড়াল লঙ্কান অলরাউন্ডার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গাকে। বিরতির পর হাসারাঙ্গার জন্য আর নতুন করে দাম হাঁকায়নি পাঞ্জাব কিংস

গত মৌসুমে পাঞ্জাব কিংসে খেলা ব্যাটসম্যান দীপক হুদাকে এবার কিনেছে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস। দাম ৫ কোটি ৭৫ লাখ

গতবারের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি, ভারতীয় পেসার হার্শাল প্যাটেলের জন্য ১০ কোটি ৭৫ লাখ খরচ করেছে তাঁর সাবেক ফ্র্যাঞ্চাইজি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ানডে ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ অধিনায়কের জন্য নিলাম টেবিল গ্রুম হয়েছিল বেশ। এই পেস বোলিং অলরাউন্ডারকে শেষমেশ ৮ কোটি ৭৫ লাখে কিনেছে লক্ষ্ণৌ সুপারজায়ান্টস

নিজের এত দাম উঠবে, হয়ত ভাবেননি নিতিশ রানা। ৮ কোটি রুপিতে এই ব্যাটসম্যানকে আবারও কিনেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স

৪ কোটি ৪০ লাখে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভোকে আবারও কিনেছে চেন্নাই সুপার কিংস

দুই কোটি রুপিতে টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান রবিন উথাপ্পাকে কিনেছে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস, গত মৌসুমে উথাপ্পা যে দলে খেলেছেন।

গুজরাট টাইটানস ২ কোটি রুপির বিনিময়ে কিনেছে ইংলিশ ওপেনার জেসন রয়কে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যান শিমরন হেটমায়ারকে নিয়ে বেশ ভালোই কাড়াকাড়ি লেগে গিয়েছিল নিলামের টেবিলে। শেষমেশ ৮ কোটি ৫০ লাখে রাজস্থান রয়্যালসে পাড়ি জমিয়েছেন এই মারকাটারি ব্যাটসম্যান।

প্রথমেই নিলাম হচ্ছে মনীশ পাণ্ডেকে নিয়ে, গত মৌসুমে যিনি খেলেছিলেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে। ৪ কোটি ৬০ লাখ রুপির বিনিময়ে তাঁকে কিনে নিয়েছে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস।

৪ কোটি ৪০ লাখে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভোকে আবারও কিনেছে চেন্নাই সুপার কিংস।

নিজের এত দাম উঠবে, হয়ত ভাবেননি নিতিশ রানা। ৮ কোটি রুপিতে এই ব্যাটসম্যানকে আবারও কিনেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স।

দেবদূত পাডিকাল ওপেনারকে ৭ কোটি ৭৫ লাখে কিনেছে আরেক রয়্যালস – রাজস্থান।

আইপিএল ২০২২ প্লেয়ার ড্রাফট

কোন দলের হাতে কত অর্থ বাকি?

  • চেন্নাই- ২০ কোটি ৮৫ লাখ রুপি (৮)
  • দিল্লি- ৩৪ কোটি ৭৫ লাখ (৬)
  • গুজরাট- ২৪ কোটি ৯০ লাখ (৭)
  • কলকাতা- ২০ কোটি ৫০ লাখ (৭)
  • লক্ষ্ণৌ- ২৪ কোটি ৯০ লাখ (৮)
  • মুম্বাই- ৩২ কোটি ৭৫ লাখ (৫)
  • পাঞ্জাব- ৪৭ কোটি ৭৫ লাখ (৭)
  • রাজস্থান- ৩২ কোটি ৭৫ লাখ (৭)
  • বেঙ্গালুরু- ২৩ কোটি (৭)
  • হায়দরাবাদ- ৪৪ কোটি ৫০ লাখ (৬)
  • চেন্নাই- ৩৪ কোটি ৮৫ লাখ (৭)

কত রুপি খরচ করতে পারবে দলগুলো?

একটি দলের জন্য সর্বোচ্চ ৯০ কোটি রুপি করে ধরা হয়েছে অর্থাৎ এর বেশি অর্থ ক্রিকেটারের পিছনে ব্যয় করতে পারবে না কোনও দল। এরই মধ্যে কিছু অর্থ তারা ব্যয় করে ফেলেছে ২ থেকে ৪ জন ক্রিকেটার ধরে রাখার জন্য।

১ম রাউন্ড শেষে বিক্রি হলেন যারা

খেলোয়াড় দল দাম (রুপিতে)
শিখর ধাওয়ান পাঞ্জাব কিংস ৮ কোটি ২৫ লাখ
রবিচন্দ্রন অশ্বিন রাজস্থান রয়্যালস ৫ কোটি
প্যাট কামিন্স কলকাতা নাইট রাইডার্স ৭ কোটি ২৫ লাখ
কাগিসো রাবাদা পাঞ্জাব কিংস ৯ কোটি ২৫ লাখ
ট্রেন্ট বোল্ট রাজস্থান রয়্যালস ৮ কোটি
শ্রেয়াস আইয়ার কলকাতা নাইট রাইডার্স ১২ কোটি ২৫ লাখ
মোহাম্মদ শামি গুজরাট টাইটানস ৬ কোটি ২৫ লাখ
ফ্যাফ ডু প্লেসি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু ৭ কোটি
কুইন্টন ডি কক লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টস ৬ কোটি ৭৫ লাখ
ডেভিড ওয়ার্নার দিল্লি ক্যাপিটালস ৬ কোটি

আইপিএল 2022 কোন প্লেয়ার কোন দলে

আইপিএল নিলাম অনুষ্ঠিত হবে 12 এবং 13 ই ফেব্রুয়ারি ব্যাঙ্গালুরুতে। নিলাম থেকে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো পছন্দের দল গঠন করেছে এবং পছন্দের খেলোয়াড় গুলোকে দলে নিয়েছে। আমরা এখন দেখে নিব আইপিএল নিলাম শেষে কোন খেলোয়ার কোন দলে গেল। কোন খেলোয়ার কোন দলে খেলার সুযোগ পেয়েছে 2022 আইপিএলে সেই স্কোয়াডটি আমরা এক নজরে দেখে নিতে পারি এই নিবন্ধ থেকে।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দলের স্কোয়াড 2022

  • রোহিত শর্মা
  • জাসপ্রিত বুমরাহ
  • বাসিল থাম্পি (৩০ লক্ষ),
  • মুরুগান অশ্বিন (১ কোটি ৬০ লক্ষ),
  • ডেওয়াল্ড ব্রেভিস (৩ কোটি),
  • ইশান কিষাণ (১৫ কোটি ২৫ লক্ষ)।

চেন্নাই সুপার কিংস দলের স্কোয়াড 2022

  • রবীন্দ্র জাদেজা
  • এমএস ধোনি
  • রুতুরাজ গায়কওয়াড়
  • মঈন আলি
  • তুষার দেশপান্ডে (২০ লক্ষ),
  • আম্বাতি রায়াড়ু (৬ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • দীপক চাহার (১৪ কোটি),
  • কেএম আসিফ (২০ লক্ষ),
  • ডোয়েন ব্র্যাভো (৪ কোটি ৪০ লক্ষ),
  • রবীন উথাপ্পা (২ কোটি)।

দিল্লি ক্যাপিটালস দলের স্কোয়াড 2022

  • ঋষভ পান্ত
  • পৃথ্বী শ
  • অক্ষর প্যাটেল
  • অ্যানরিচ নর্টজে
  • শার্দুল ঠাকুর (১০ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • মিচেল মার্শ (৬ কোটি ৫০ লক্ষ),
  • মুস্তাফিজুর রহমান (২ কোটি),
  • কেএস ভরত (২ কোটি),
  • ডেভিড ওয়ার্নার (৬ কোটি ২৬ লক্ষ),
  • কুলদীপ যাদব (২ কোটি),
  • অশ্বিন হেব্বার (২০ লক্ষ),
  • কমলেশ নাগারকোটি (১ কোটি ১০ লক্ষ),
  • সরফরাজ খান (২০ লক্ষ)।

সানরাইজার হায়দ্রাবাদ দলের স্কোয়াড 2022

  • কেন উইলিয়ামসন
  • নিকোলাস পুরান (১০ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • জগদীশা সূচিত (২০ লক্ষ),
  • শ্রেয়স গোপাল (৭৫ লক্ষ),
  • কার্তিক ত্যাগী (৪ কোটি),
  • ওয়াশিংটন সুন্দর (৮ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • ভুবনেশ্বর কুমার (৪ কোটি ২০ লক্ষ),
  • টি নটরাজন (৪ কোটি),
  • প্রিয়ম গর্গ (২০ লক্ষ),
  • অভিষেক শর্মা (৬ কোটি ৫০ লক্ষ),
  • রাহুল ত্রিপাঠী (৮ কোটি ৫০ লক্ষ)

কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের স্কোয়াড 2022

  • সুনীল নারিন
  • আন্দ্রে রাসেল
  • বরুণ চক্রবর্তী
  • ভেঙ্কটেশ আইয়ার
  • শিবম মাভি (৭ কোটি ২৫ লক্ষ),
  • শেল্ডন জ্যাকসন (৬০ লক্ষ),
  • প্যাট কামিন্স (৭ কোটি ২৫ লক্ষ),
  • শ্রেয়স আইয়ার (১২ কোটি ২৫ লক্ষ),
  • নীতিশ রানা (৮ কোটি)।

রাজস্থান রয়েলস দলের স্কোয়াড 2022

  • সঞ্জু স্যামসন
  • কেসি কারিয়াপ্পা (৩০ লক্ষ),
  • রিয়ান পরাগ (৩ কোটি ৮০ লক্ষ),
  • ট্রেন্ট বোল্ট (৮ কোটি),
  • রবিচন্দ্রন অশ্বিন (৫ কোটি),
  • যুজবেন্দ্র চাহাল (৬কোটি ৫০ লক্ষ),
  • শিমরন হেতমায়ের (৮ কোটি ৫০ লক্ষ),
  • প্রসিধ কৃষ্ণা (১০ কোটি),
  • দেবদূত পাডিক্কাল (৭ কোটি ৭৫ লক্ষ)।

রয়েল চ্যালেঞ্জার ব্যাঙ্গালোর দলের স্কোয়াড 2022

  • বিরাট কোহলি
  • গ্লেন ম্যাক্সওয়েল
  • ফ্যাফ ডু’প্লেসি (৭ কোটি),
  • অনূজ রাওয়াত (৩ কোটি ৪০ লক্ষ),
  • জোস হ্যাজেলউড (৭ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • আকাশ দীপ (২০ লক্ষ),
  • শাহবাজ আহমেদ (২ কোটি ৪০ লক্ষ),
  • দীনেশ কার্তিক (৫ কোটি ৫০ লক্ষা),
  • হার্ষাল প্যাটেল (১০ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা (১০ কোটি ৭৫ লক্ষ)।

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দলের স্কোয়াড 2022

  • জিতেশ শর্মা (২০ লক্ষ),
  • শাহরুখ খান (৯ কোটি),
  • জনি বেয়ারস্টো (৬ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • হরপ্রীত ব্রার (৩ কোটি ৮০ লক্ষ),
  • শিখর ধাওয়ান (৮ কোটি ২৫ লক্ষ),
  • ইশান পোড়েল (২৫ লক্ষ),
  • কাগিসো রাবাদা (৯ কোটি ২৫ লক্ষ),
  • রাহুল চাহার (৫ কোটি ২৫ লক্ষ),
  • প্রবসিমরন সিং (৬০ লক্ষ)।

লখনউ সুপার জায়ান্টস:

  • আবেশ খান (১০ কোটি),
  • কুইন্টন ডি’কক (৬ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • মার্ক উড (৭ কোটি ৫০ লক্ষ),
  • মণীশ পান্ডে (৪ কোটি ৬০ লক্ষ),
  • জেসন হোল্ডার (৮ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • দীপক হুডা (৫ কোটি ৭৫ লক্ষ),
  • ক্রুণাল পান্ডিয়া (৮ কোটি ২৫ লক্ষ),
  • অঙ্কিত রাজপুত (৫০ লক্ষ)।

গুজরাট টাইটানস:

  • নূর আহমেদ (৩০ লক্ষ),
  • জেসন রয় (২ কোটি),
  • মহম্মদ শামি (৬ কোটি ২৫ লক্ষ),
  • রাহুল তেওয়াটিয়া (৯ কোটি),
  • অভিনব সাদারঙ্গানি (২ কোটি ৬০ লক্ষ),
  • লকি ফার্গুসন (১০ কোটি),
  • আর সাই কিশোর (৩ কোটি)।

Md Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button