উক্তি

চাঁদ নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস, ক্যাপশন, ছোট কবিতা, ছন্দ, কিছু কথা

চাঁদ খুবই একটি রোমাঞ্চকর জিনিস। রাতের বেলায় পূর্ণিমার চাঁদ রোমান্টিক মুহূর্ত তৈরি করে দেয়। চাঁদ নিয়ে কবিগন বিভিন্ন রকম কবিতা লিখে গেছেন। আজকের এই নিবন্ধে আমরা চাঁদ নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস, ক্যাপশন, ছোট কবিতা, ছন্দ, ও কিছু কথা আলোচনা করব। তাই আপনি আমার এই আর্টিকেলে চাঁদ নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস, ক্যাপশন, ছোট কবিতা, ছন্দ, ও কিছু কথা পেয়ে যাবেন।

আবার ইদের চাদ সকলের মনে আনন্দের ঝড় তুলে এর প্রধান কারণ হলো রাত পোহালেই ঈদ। ঈদের আগমনী বার্তা নিয়ে আসে। তাই আজকের এই নিবন্ধে আমরা চাঁদ নিয়ে বিভিন্ন রকম তথ্য আপনাদের সামনে তুলে ধরব।

চাঁদ নিয়ে উক্তি

চাঁদ কবিতা মনীষীগণের কাছে সবচেয়ে আকর্ষণীয় বস্তু । চাঁদকে নিয়ে বহু লেখক বিভিন্ন ধরনের কবিতা এবং বিভিন্ন ধরনের ছন্দ লিখে গেছেন। চাঁদকে নিয়ে বিভিন্ন ধরণের উক্তি বিভিন্ন মনীষীদের এই নিবন্ধে আমরা তুলে ধরব। তাই চাঁদ বিভিন্ন ধরনের উক্তি আমাদের এই ওয়েবসাইটে আপনি সংগ্রহ করতে পারবেন। আমরা চাঁদ নিয়ে বিভিন্ন ধরনের উক্তি ও ছড়া আপনাদের সাথে তুলে ধরেছি। আশাকরি আমাদের এই নিবন্ধটি আপনার ভালো লাগবে।

চাঁদ তার আলো দিয়ে আপনাকে সারারাত পথ দেখাবে , কিন্তু সে সর্বদা অন্ধকারে থাকতে পছন্দ করে ।-শ্যানন অ্যাল্ডার

আমি ভাবতে ভালোবাসি যে প্রাণী, মানুষ, উদ্ভিদ, মাছ, গাছ, তারা এবং চাঁদ সবকিছু একসাথে রয়েছে ।-গ্লোরিয়া ভ্যান্ডারবিল্ট

সর্বদা মনে রাখবেন আমরা একই আকাশের নীচে আছি, একই চাঁদ দেখছি ।-ম্যাক্সাইন লি

তাকে এবং চাঁদকে সর্বদা অন্ধকারে খেলতে পাওয়া যেতে পারে।- এ.জে.লওলেস

চাঁদের বিশালতা মানুষের মাঝেও আছে, চাঁদ এক জীবনে বারবার ফিরে আসে । ঠিক তেমন মানুষ প্রিয় বা অপ্রিয় যেই হোক, একবার চলে গেলে আবার ফিরে আসে ।- হুমায়ূন আহমেদ

প্রত্যেকেই এক একটি চাঁদ এবং সবার একটি অন্ধকার দিক আছে যা কেউ কখনও অন্যকে দেখায় না ।-মার্ক টোয়েন

উজ্জ্বল তারা গুলো ছাড়া চাঁদের আলো অনেকটাই কমে যায় ।-জে.আর.আর. টলকিয়েন

চাঁদ এত সুন্দর ছিল যে সমুদ্র একটি আয়না ধরেছিল ।- আনি ডিফ্র্যাঙ্কো

যারা চাঁদ দেখতে ভালোবাসে, তারা সুন্দর মনের অধিকারী ।-সংগৃহীত

আমার মনে হচ্ছে চাঁদ খুব সুন্দরী রমণী । এবং সে নিয়ন্ত্রণে আছে ।-রেভেন লেনা

আমরা সবাই উজ্জ্বল চাঁদের মত, যদিও আমাদের অন্ধকার দিকও রয়েছে ।-খলিল জিবরান

চাঁদ একাকী কথা বলার জন্য বন্ধু ।-কার্ল স্যান্ডবার্গ

ঘর খুলিয়া বাহির হইয়া জোছনা ধরতে যাই; হাত ভর্তি চান্দের আলো ধরতে গেলে নাই।-হুমায়ূন আহমেদ

চাঁদ নিয়ে স্ট্যাটাস

পূর্ণিমার চাঁদ হোক কিংবা ঈদের চাঁদ। আকাশে চাঁদ দেখা দিলেই আমাদের মনে কত রকম কতইনা ভেসে ওঠে। তাই চাঁদ আপনি যদি স্ট্যাটাস প্রদান করতে চান তাহলে আমাদের এই ওয়েবসাইট হতে আপনি চাঁদ নিয়ে অনেকগুলো স্ট্যাটাস পেয়ে যাবেন। চাঁদ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় দেয়ার মত স্ট্যাটাস আজকে এই ওয়েবসাইটের আমরা তুলে ধরেছি। এই স্ট্যাটাস গুলো আপনাদের পছন্দ হবে বলে আমরা আশা করছি। আমাদের প্রদত্ত স্ট্যাটাস গুলো আপনাদের পছন্দ হলে এখান থেকে স্ট্যাটাস সংগ্রহ করে আপনি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় দিতে পারেন।

চাঁদ যেমন রাতের আকাশ আলোকিত করে, তুমি তেমন আমার মনের আকাশ আলোকিত করো ।

রাতের আকাশে জানালা দিয়ে চাঁদ দেখা, পৃথিবীর সব চেয়ে সুন্দর একটি মুহূর্ত ।

যখন মন অনেক খারাফ থাকবে জানালা খুলে চাঁদের দিকে তাকিয়ে দেখো, আমি আছি তারা হয়ে চাঁদের পাশেই ।

আমি চাঁদের সাথে তোমার তুলনা করবো না, কারণ তুমি তার চেয়েও সুন্দর ।

তারা ভরা রাতে, তোমার হাত রেখো আমার হাতে কাটিয়ে দেবো অনন্ত কাল ।

তোমার মনের আকাশে পূর্ণিমার চাঁদ হয়ে থাকতে দেবে ? আলোয় আলোয় ভরিয়ে দেবো তোমার জীবন ।

পূর্ণিমার চাঁদের আলোয় যখন ঝকমক করবে এই পৃথিবী, তুমি তখন আমার পানে এসো নীল রঙা শাড়ি আর কাচের চুড়ি পরে।

কোন এক রাতে থাকবে কি আমার পাশে, চাঁদের আলোতে দেখবো তোমায় দু নয়ন ভরে ।

চাঁদের হাসির বাঁধ ভেঙ্গেছে, উছলে পড়ে আলো,

তুমি-আমি সেই আলোতে ঘুচাবো সকল কালো।

চাঁদকে ভালোবাসে কাছে টেনে নাও। সে নিজের দ্যুতি তে তোমায় আলোকিত করে দেবে।

চাঁদের মধ্যে এক ঐশ্বরিক ক্ষমতা আছে, যা দ্বারা সে অন্ধকার দূরীভূত করে।

তুমি তো চাঁদের মতোই সুন্দর!

চাঁদ ভালোবাসি, কারণ আমার চাঁদ যে তুমি ই!

আমি প্রতি রাতের ঐ চাঁদ টার মাঝে খুঁজে পাই তোমার ওই কৃষ্ণবর্ণা মুখ।

পূর্ণিমার আকাশের বৃত্তাকার ওই চাঁদ, আহা! কী সুন্দর!

চাঁদ নিয়ে ক্যাপশন

পূর্ণিমার চাঁদ আকাশে উঠেছে। সুপার মুন দেখে আপনার হাতের সেল ফোন দিয়ে একটি খুব সুন্দর ছবি তুললেন। সেই ছবি অবশ্যই ফেসবুকে দেওয়ার কথা ভাবছেন? ফেসবুকে ছবিটি দিলেই হবে না, সাথে ছবিটির সাথে একটি ক্যাপশন যোগ করা দরকার। তাই আজকের এই ওয়েবসাইটে আমরা চাঁদ নিয়ে বিভিন্ন ধরনের ক্যাপশন সংযুক্ত করে দিয়েছি। আপনারা আমার ওয়েবসাইট হতে চাঁদ ক্যাপশনগুলো দেখে নিতে পারেন। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।

যখন মন অনেক খারাফ থাকবে জানালা খুলে চাঁদের দিকে তাকিয়ে দেখো, আমি আছি তারা হয়ে চাঁদের পাশেই ।

কোন এক রাতে থাকবে কি আমার পাশে, চাঁদের আলোতে দেখবো তোমায় দু নয়ন ভরে ।

চাঁদের হাসির বাঁধ ভেঙ্গেছে, উছলে পড়ে আলো,
তুমি-আমি সেই আলোতে ঘুচাবো সকল কালো।

পূর্ণিমার চাঁদের আলোয় যখন ঝকমক করবে এই পৃথিবী, তুমি তখন আমার পানে এসো নীল রঙা শাড়ি আর কাচের চুড়ি পরে।

চাঁদের মধ্যে এক ঐশ্বরিক ক্ষমতা আছে, যা দ্বারা সে অন্ধকার দূরীভূত করে।

তুমি তো চাঁদের মতোই সুন্দর!

চাঁদ ভালোবাসি, কারণ আমার চাঁদ যে তুমি ই!

আমি প্রতি রাতের ঐ চাঁদ টার মাঝে খুঁজে পাই তোমার ওই কৃষ্ণবর্ণা মুখ।

চাঁদকে ভালোবাসে কাছে টেনে নাও। সে নিজের দ্যুতি তে তোমায় আলোকিত করে দেবে।

চাঁদ নিয়ে ছোট কবিতা

চাঁদ সব সময় আকর্ষণীয় এবং কাঙ্ক্ষিত প্রস্তুত। ছোটবেলায় মা শিশুকে চাঁদ দেখিয়ে বিভিন্ন ধরনের রুপ কথা বলে থাকে। বড় হওয়ার সাথে সাথে চাঁদ আমাদের কাছে একটি রোমান্টিক বস্তুতে পরিণত হয়। তাই আজকের এই ওয়েবসাইটে আমরা চাঁদ নিয়ে কিছু ছোট কবিতা আপনাদের সাথে তুলে ধরব। আপনারা আমার এই নিবন্ধটি হতে চাঁদ নিয়ে ছোট কবিতা গুলো পড়তে পারেন। আমরা আপনাদের জন্য চাঁদ নিয়ে ছোট কবিতা সংযুক্ত করেছি।

ও চাঁদ সামলে রাখো জোছনাকে
কারো নজর লাগতে পারে
মেঘেদের উড়ো চিঠি
উড়েও তো আসতে পারে
ও চাঁদ …
সামলে রাখো জোছনাকে
ঝলমল করিও না গো তোমার ঐ অতো আলো
বেশী রূপ হলে পরে সাবধানে থাকাই ভালো
মুখের ঐ উড়নিটাকে একটু রাখো
খুলোনাকো দোহাই… একেবারে.
ও চাঁদ …
সামলে রাখো জোছনাকে
এই সবে রাত হয়েছে এখনি অমন হলে
মাঝরাতে আকাশটাতে যাবে যে আগুন জ্বলে
সেই ফাঁকে তুমিও কখন চুরি যাবে
কাকে পাবে বাঁচাতে তোমারে
ও চাঁদ সামলে রাখো জোছনাকে

কিছু কথা চাঁদের বুকে আচর কেটে কেটে এঁকে গেছে কলঙ্কের আলপনা,
বাকি কথারা জমেছে পাহাড়ের পাঁজরে আর হৃদপিন্ডের মতো মৌন পাথরে!
প্রতিটি সমুদ্র কানায় কানায় ভরে গেছে আমার বেদনার লোনা জলে,
ঝড়ের মতো দীর্ঘ্যশ্বাস যখন সেই সমুদ্রে মাতালের মতো ঢেউ তোলে
একটি চন্দ্রাহত গাঙচিল আশ্রয় খোঁজে ধ্বংসের স্তূপে, ভেঙ্গে পড়া মাশ্তুলে।

পরিশেষে, চাঁদ সব সময় ভালোবাসার বস্তু, এই ভালবাসার বস্তুটিকে নিয়ে আজ বিভিন্ন ধরনের তথ্য আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম। আমরা আশা করি এই পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে। পুরো সময় ধরে আমার এই নিবন্ধটি পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

Md Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button