ট্রাভেল

ঢাকা থেকে রাজশাহী বিমানের ভাড়া, সময়সূচী, অনলাইন টিকিট বুকিং ২০২২

রাজশাহী বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের একটি বিভাগীয় শহর। এ শহরটি পদ্মা নদীর তীরে অবস্থিত। কথিত আছে রাজশাহী শহরের আম ,লিচু ,কাঁঠাল , পোশাক,রেশম এগুলো খুবই বিখ্যাত। এছাড়া শিক্ষা নগরী হিসেবে ও রাজশাহী বেশ বিখ্যাত।রাজশাহীতে রয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় রাজশাহি কলেজসহ নামকরা কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। বিভাগীয় শহর হিসেবে রাজশাহীর গুরুত্ব অনেক বেশি। প্রতিদিন ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যাতায়াতের জন্য অনেক মানুষ চলাচল করে। রাজশাহীতে যাতায়াতের জন্য সড়কপথ, রেলপথ ,আকাশপথ, তিনটি উপায়ে যাতায়াত করা যায়।

ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যাবার উপায়

ঢাকা থেকে রাজশাহীর দূরত্ব প্রায় 255 কিলোমিটার। ঢাকা থেকে রাজশাহী যাওয়ার জন্য তিনটি উপায় আছে সড়কপথ, রেলপথ, আকাশপথ। সড়কপথে বাসে ঢাকা থেকে রাজশাহী যাওয়ার জন্য সময় লাগবে সাত থেকে আট ঘণ্টা। বাসগুলো টাঙ্গাইল হয়ে বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর থেকে রাজশাহীতে যায়। ঈদ-পূজা হয় সেক্ষেত্রে জ্যাম সৃষ্টি হয় তখন 10 থেকে 11 ঘণ্টা সময় লাগে পৌছাইতে রাজশাহীতে।

রেলপথ দিয়ে ঢাকা হতে রাজশাহী তে যাওয়ার জন্য 260 কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে হবে। এ পথে কোন জ্যাম এর সম্মুখীন হতে হবে না। শুধুমাত্র ঈশ্বরদী জংশন একটি ক্রসিং হয় সেই ক্ষেত্রে অনেক সময় অনেক লম্বা সময় হয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়।

আকাশপথে ঢাকা থেকে রাজশাহী তে যেতে হলে সর্বোচ্চ 45 থেকে 55 মিনিট সময় লাগে। এ পথে কোন ঝামেলা পোহাতে হয় না যাতায়াতের জন্য। শাহজালাল আন্তর্জাতিক জাতিক বিমান বন্দর থেকে উঠে আর সেই শাহ মখদুম বিমানবন্দরে অবতরণ করে। অল্প সময় আপনার যাত্রা শেষ হয়ে যাবে বিমানে।

ঢাকা হতে রাজশাহী তে যাওয়ার জন্য যে কয়টি ফ্লাইট চলাচল করে।

  1. বাংলাদেশ বিমান
  2. নভোএয়ার
  3. ইউ এস বাংলা।

ঢাকা থেকে রাজশাহীতে যাবার বিমান ভাড়া

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স
  •  বিমান বাংলাদেশে এয়ারলাইন্স সুপার সেভরের জনপ্রতি সর্বনিম্ন 4500 টাকা থেকে সর্বোচ্চ 5000 টাকা পর্যন্ত পাওয়া যায়।
  • বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স বিজনেস ক্লাসের জনপ্রতি সর্বনিম্ন5000 টাকা থেকে সর্বোচ্চ9000টাকা পর্যন্ত টিকিট পাওয়া যায়। অনলাইন টিকিট:www.biman-airlines.com
নভোএয়ার এয়ারলাইনস
  • নভোএয়ার লাইসেন্স এর স্পেশাল প্রমো জনপ্রতি সর্বনিম্ন 4500 টাকা থেকে 5000 টাকা পর্যন্ত টিকিট পাওয়া যায়।
  • নভোএয়ার লাইসেন্স এর ফ্লাক্সিবল এ জনপ্রতি সর্বনিম্ন 5000টাকা থেকে সর্বোচ্চ 9000 টাকা পর্যন্ত টিকিট পাওয়া যায়। অনলাইন টিকিট:www.flynovoair.com
ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স
  • ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স সর্বনিম্ন 4500 টাকা থেকে সর্বোচ্চ 5000 টাকা পর্যন্ত টিকিট পাওয়া যায়।
  • ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স সর্বনিম্ন 5000টাকা থেকে সর্বোচ্চ 9000 টাকা পর্যন্ত টিকিট পাওয়া যায়। অনলাইন টিকিট:www.usbir.com

এর ভাড়া সর্বদা পরিবর্তনশীল টিকিটের তারিখ অনুযায়ী বিমানের ভাড়া পরিবর্তন হতে পারে। এতে খুব বেশি ভাড়ার কমবেশি হয় না।

ঢাকা থেকে রাজশাহী যাওয়ার জন্য যে তিনটি বিমান সংস্থা বিভিন্ন দিক বিবেচনা করে বিভিন্ন সময় ফ্লাইট পরিচালনা করে তা হল:

  1. সপ্তাহে প্রতিদিন বিমান বাংলাদেশ ঢাকা থেকে ছাড়ে বিকাল 3:30 আর রাজশাহীতে পৌঁছায় বিকাল 4:45 মিনিটে।
  2. সপ্তাহে প্রতিদিন নভোএয়ার ঢাকা থেকে ছাড়ে সকাল 10:30 মিনিটে আর রাজশাহীতে পৌঁছায় সকাল11:50 মিনিটে।
  3. সপ্তাহে প্রতিদিন ইউএস-বাংলা ঢাকা থেকে ছাড়ে বিকেল 3:00 মিনিটে আর পৌঁছায় বিকাল 4:20 মিনিটে।

বিমান রুটিন যেকোনো সময় পরিবর্তন হতে পারে সে ক্ষেত্রে সমস্ত দায়-দায়িত্ব বিমানসংস্থার।

ঢাকা হতে রাজশাহী তে যাওয়ার জন্য টিকিট কিভাবে কাটবেন

বিমানে ভ্রমণ এ কথাটি শুনলেই কেমন যেন মনের ভিতর আলাদা করে একটি আনন্দ অনুভব হয়। বিমানে ভ্রমণ আগে মানুষের কাছে নাগালের বাইরে ছিল তবে হ্যাঁ এখন বিমানে ভ্রমণ মানুষ চাইলে করতে পারে সেক্ষেত্রে বিমান কর্তৃপক্ষরা ভাড়া অনেকটাই কম করা হয়েছে। ভ্রমণ করার জন্য পাসপোর্ট এর প্রয়োজন হয় না। তেমন কোন ঝামেলা পোহাতে হয় না। মাত্র একটি আইডি কার্ড হলেই চলে নিজের নিরাপত্তার খাতিরে।

বিমানে ঢাকা হতে রাজশাহী তে যেতে মাত্র 45 থেকে 55 মিনিটের সময় লাগে। মানব সভ্যতার অনেকটা পরিবর্তন হয়েছে মানুষ এখন আধুনিক। মানুষ সময় কে গুরুত্ব দিতে শিখেছে। দীর্ঘ লম্বা সময় যাতায়াত না করে বিমানে অতি অল্প সময়ে পৌঁছে যাওয়াটাই উত্তম বলে বিবেচনা করে মানুষ।এখন বিমানে টিকিট ক্রয় করার জন্য বিমান অফিস থেকে টিকিট ক্রয় করলেই চলে। ওয়েবসাইটগুলো থেকে ও বিমানের টিকিট ক্রয় করা সম্ভব হয়।

সর্বোপরি শেষ বলতে চাচ্ছি যে আপনাদের উদ্দেশ্যে উপরে যে তথ্যগুলো প্রদান করা হয়েছে আশা করি এই তথ্যগুলো আপনাদের বিমানে যাতায়াত করার জন্য প্রয়োজনীয় এবং অন্যকে সাহায্য করবেন। বিমানে ভ্রমণ আপনাদের জন্য শুভ হোক। এতক্ষন আমাদের সঙ্গে থাকার জন্য আপনাদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।যাতায়াতে কোন সমস্যা হলে অবশ্যই বিমান কর্তৃপক্ষকে জানাবেন, ধন্যবাদ।

Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button