ফিনান্স

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার নিয়ম ২০২২

অনেকেই তাঁদের বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করতে চান। বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার অনেকগুলো কারণ রয়েছে যেমন কেউ পুরনো একাউন্ট বন্ধ করে নতুন অ্যাকাউন্ট করতে চান, কেউ বিকাশ ব্যবহারে অসন্তুষ্ট হয়ে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করতে চান, কেউ আবার নিজের নাম্বারে অন্য কারো করা অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে পুনরায় নিজের নামে অ্যাকাউন্ট করতে চান। আপনি যদি উল্লেখিত যেকোনো কারণে কিংবা নতুন কোনো কারণে আপনার বিকাশ একাউন্টটি বন্ধ করতে চান তাহলে এই পোস্ট টি মনোযোগ সহকারে পড়ুন । এটি আপনাকে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করতে সম্পূর্ণ ভাবে সাহায্য করবে। সেই সাথে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও তথ্য সম্পর্কে জানতে পারবেন।

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করার প্রয়োজনীয় তথ্য

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করতে আপনাকে বিকাশ একাউন্টের মালিক হতে হবে। এখানে মালিক বলতে বোঝানো হয়েছে বিকাশ একাউন্টে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দ্বারা তৈরি হতে হবে। জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে একাউন্ট এর পাশাপাশি বিকাশ একাউন্টের ব্যালেন্স ০ করতে হবে। এই দুটি তথ্য ছাড়া বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করতে আর কোন তথ্যের প্রয়োজন নেই।

কোথায় এবং কিভাবে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করবেন?

বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করতে বিকাশ হেল্পলাইন নাম্বারে কল করে কিংবা লাইভ চ্যাটের মাধ্যমে কিংবা বিকাশ অ্যাপ থেকে কিংবা বিকাশ মেনু থেকে বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করা সম্ভব নয়। বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করতে বিকাশ একাউন্টের মালিক কে সরাসরি বিকাশ কেয়ার কিংবা বিকাশ সেন্টার এ ভিজিট করতে হবে। বিকাশ একাউন্ট বন্ধ করতে বিকাশ সেন্টারে কিংবা বিকাশ কেয়ার ভিজিট করার পূর্বে অবশ্যই যাচাই করে নিবেন বিকাশ একাউন্টে আপনার নামে আছে কিনা এবং বিকাশ একাউন্টের ব্যালেন্স ০ করা আছে কিনা। সবকিছু ঠিক থাকলে বিকাশ কেয়ার কিংবা বিকাশ সেন্টার ভিজিট করে আপনি আপনার বিকাশ একাউন্টটি বন্ধ করতে পারবেন।

বিকাশ নিয়োজিত প্রতিনিধিকে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ ইচ্ছাটি জানান এবং প্রতিনিধি সে ব্যাপারে আপনাকে সহযোগিতা করবে। আপনার বিকাশ একাউন্টটি বন্ধ করলে আপনি আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে পুনরায় একটি বিকাশ একাউন্ট করতে পারবেন। কিভাবে ঘরে বসে একটি বিকাশ একাউন্ট তৈরি করবেন এ নিয়ে আমাদের আরেকটি পোস্ট আছে। আপনি চাইলে আমাদের সে পোস্টটি ঘুরে আসতে পারেন।

মনে রাখবেন আপনার বিকাশ একাউন্টটি আপনার পরিবার কিংবা অন্য কারো জাতীয় পরিচয় পত্র দ্বারা হয়ে থাকলে অবশ্যই একাউন্ট বন্ধ করার জন্য সেই ব্যক্তিকে বিকাশ অফিসে নিয়ে যেতে হবে। বিকাশ একাউন্টের মালিকানা পরিবর্তনের ব্যাপারে ইতিমধ্যে আমরা অন্য একটি পোষ্ট প্রকাশ করেছি। আপনি যদি আপনার বিকাশ একাউন্টটি অন্য কারো নাম থেকে পরিবর্তন করে নিজের নামে করতে চান তাহলে এই পোস্টটি অনুসরণ করুন। এ ব্যাপারে আপনার আর কোন প্রশ্ন কিংবা জিজ্ঞাসা থাকলে আমাদেরকে কমেন্ট করে জানান। আমাদের একজন প্রতিনিধি খুব দ্রুত আপনার প্রশ্নের যথাযথ উত্তর প্রদান করবে।

Jahidul Islam

আমি মোঃ জাহিদুল ইসলাম। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলা বিভাগ হতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সম্পন্ন করে 2018 সাল থেকে সমাজের অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, সামাজিক,মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি অবলোকন করে- জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী। নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই নবরুপ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি।
Back to top button